শার্শায় ধর্ষন মামলার পলাতক আসামি আটক

লেখক: Arifuzman Arif
প্রকাশ: ৪ মাস আগে

বেত্রাবতী ডেস্ক।।পালিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা হলো না ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি ধর্ষক বজলু গাজীর। ধর্ষণের ১ মাস ৬ দিন পর তাকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারী) ভোর রাতে ঢাকার পল্লবী থানা এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেছে পুলিশ।

আটক ধর্ষক বজলু গাজী শার্শা থানার রুদ্রপুর গ্রামের আনসার আলী গাজীর ছেলে।

আর এ ঘটনার পর থেকেই পলাতক ছিল ধর্ষক বজলু গাজী।

উল্লেখ্য, ৬ষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রী স্কুলে যাওয়া আসার পথে, প্রায় সময় একা পেয়ে তাকে কুপ্রস্তাব দিতো বখাটে প্রাইভেটকার চালক বজলু গাজী।

ঘটনার দিন গত ২১ শে ডিসেম্বর সন্ধ্যায় প্রাইভেট পড়া শেষে বাড়ি ফিরছিল ওই ছাত্রী। এ সময় ওৎ পেতে থাকা বজলু গাজী তাকে জোরপূর্বক ধরে একটি ঘরে নিয়ে যায় এবং ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে মুখে ওড়না পেঁচিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। পরে তার চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে আসলে ধর্ষক বজলু তাকে ফেলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে ওই ছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়।

পরিবারকে জানালে তার পিতা মফিজুল ইসলাম ওই রাতেই বাদী হয়ে বজলুকে আসামি করে শার্শা থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলা দায়েরের পর পুলিশ বজলুকে আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রাখে। আর অবশেষে আজ ভোরে তাকে আটক করে।

বজলুর বিরুদ্ধে একাধিক নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগও রয়েছে বলে জানায় এলাকাবাসী।

শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম খান জানান, আটকের পর ধর্ষক বজলু গাজীকে যশোর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।