খালি পেটে জিরা পানি খাওয়ার উপকারিতা

Admin

নভেম্বর ০৭ ২০২১, ১৯:০৭

মসলা হিসেবে জিরা আমাদের সবারই পরিচিত। রান্নায় জিরা ব্যবহারের প্রধান কারণ স্বাদ ও গন্ধ বাড়ানো বলে মনে হলেও এর রয়েছে আরও অনেক উপকারিতা।

নিয়মিত জিরা খেলে তা আমাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ, হজমের সমস্যা দূর, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ ও রক্তস্বল্পতা দূর করার পাশাপাশি সাহায্য করে ওজন কমাতে। সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে নানাভাবে কাজ করে জিরা।

জিরায় আছে আয়রন, তামা, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, জিঙ্ক ও পটাশিয়াম। বিভিন্ন অসুখে ঘরোয়া প্রতিকার হিসেবে জিরা ব্যবহার করা হয়।

আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য বিশেষ উপকারী হলো জিরা ভেজানো পানি। প্রতিদিন একগ্লাস জিরা ভেজানো পানি পান করলে তা আমাদের নানা উপায়ে উপকার করে থাকে।

এটি সকালবেলা খালি পেটে খেলে বেশি উপকার পাবেন।

জেনে নিন সকালে খালি পেটে জিরা ভেজানো পানি খেলে কী হয়-

১. ওজন কমায়: যারা ওজন কমানোর চেষ্টা করছেন তাদের সেই কাজে সাহায্য করতে পারে জিরা। জিরা ভেজানো পানি হজম ভালো হতে সাহায্য করে এবং শরীর থেকে সব ধরনের দূষিত পদার্থ বের করে দেয়।

যদি আপনার পাচনতন্ত্র ঠিক থাকে তাহলে সহজেই শরীর থেকে দূষিত পদার্থ বের হয়ে যায়। এ কারণে ফ্যাট ও ওজন দুটোই দ্রুত কমে। নিয়মিত সকালে খালি পেটে জিরা ভেজানো পানি খেলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

২. বদহজম দূর করে: অনেকের ক্ষেত্রেই এই সমস্যা দেখা দিতে পারে, অন্ত্রে গ্যাস জমে গিয়ে পেট ফুলে যায়। যে কারণে পেট ফুলে শক্ত হয়ে যেতে পারে এবং পেট ভার হয়ে থাকার মতো অনুভূতি হয়। সেইসঙ্গে পেট ব্যথা বা পেটে অস্বস্তি হতে পারে।

এমন সমস্যাকে সাধারণ মনে হলেও ভোগান্তি কম কিছু হয় না। তাই এ থেকে মুক্তি পেতে জিরা ভেজানো পানি পানের অভ্যাস করুন। বদহজমের সমস্যা দূর করতে জিরা বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

৩. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে জিরা কার্যকরী। এতে আছে পটাশিয়াম, আয়রন এবং ফাইবার। আপনি যদি নিয়মিত জিরা ভেজানো পানি পান করেন তবে তা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দ্রুত শক্তিশালী করে তুলবে। এটি নানা ধরনের রোগের সঙ্গে লড়াই করার পাশাপাশি ঘনঘন অসুখে আক্রান্ত হওয়ার ভয় কমিয়ে দেয়।

৪. নিয়ন্ত্রণে রাখে ডায়াবেটিস: যারা ডায়াবেটিসে ভুগছেন তাদের জন্য উপকারী একটি পানীয় হতে পারে জিরা ভেজানো পানি। এটি ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীর জন্য খুবই কার্যকরী।

জিরা আমাদের শরীরের ইনসুলিন উত্পাদন বাড়িয়ে তোলে। সেইসঙ্গে নিয়ন্ত্রণে রাখে শর্করার মাত্রা। এর ফলে নিয়ন্ত্রণে থাকে ডায়াবেটিস।

৫. নিয়ন্ত্রণ করে রক্তচাপ: উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগলে নিশ্চিন্তে খেতে পারেন জিরা ভেজানো পানি। এতে থাকে উচ্চ পটাশিয়াম।

এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ খনিজ, যা আমাদের শরীরের ক্রিয়াকলাপ সঠিকভাবে সম্পন্ন হওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এছাড়াও জিরা ভেজানো পানি খেলে তা লবণের ক্ষতিকর প্রভাবগুলোর মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখে। ফলে নিয়ন্ত্রণে থাকে রক্তচাপ।