পর্যটকদের জন্য সীমান্ত খুলছে ভারত

Admin

অক্টোবর ১৫ ২০২১, ০৭:১৫

দীর্ঘ ১৯ মাস পর শুক্রবারই প্রথম ভারতের মাটিতে পা রাখতে পারবেন বিদেশি পর্যটকরা।

দৈনিক করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার কমে যাওয়ায় কোভিড সংক্রান্ত বিধিনিষেধ শিথিল এবং একই সাথে পর্যটকদের জন্য দেশের সীমান্ত খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত।

শুক্রবার থেকেই চার্টার্ড ফ্লাইটে করে আসা পর্যটকদের ট্যুরিস্ট ভিসা দেওয়া শুরু করবে ভারত। আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে বাণিজ্যিক ফ্লাইটে করে আসা পর্যটকদের জন্য ভিসা প্রদানের সময়কাল আরও বাড়ানো হবে।

করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের মার্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ভারতের সকল সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়। যদিও গত কয়েক মাসে কূটনীতিক ও উচ্চ পর্যায়ের বাণিজ্যিক কর্মকর্তাদের জন্য এই নিয়ম শিথিল করা হয়েছে।

চলতি মাসের শুরুতেই বিদেশি পর্যটকদের ভারত ভ্রমণের অনুমতি দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়। গত এপ্রিল ও মে মাসে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গের ভয়াবহতার সময় ভারতে দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪০০,০০০। কিন্তু এই মুহূর্তে কোভিড পরিস্থিতি অনেকটাই সামলে উঠেছে তারা। দেশটিতে এখন দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ২০,০০০। ভারতের ৭০ শতাংশ মানুষ ইতিমধ্যে কোভিড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ।

তবে বিশেষজ্ঞ ও সরকারি কর্মকর্তারা এখনই আত্মতুষ্টিতে ভুগতে নারাজ। জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রগুলো কোভিডের তৃতীয় তরঙ্গের সময় ‘সুপার স্প্রেডার’ হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারে বলে তাদের ধারণা।

ভারতের পর্যটন মৌসুমকে সামনে রেখে কোভিড বিধিনিষেধ শিথিল করায়, দেশটির পর্যটন শিল্প আবারও চাঙা হয়ে ওঠার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

ভৌগলিক ও ঐতিহাসিক বৈচিত্র্যের কারণে পৃথিবীর বহু দেশের মানুষের কাছে ভারত একটি অন্যতম ‘ভ্রমণ গন্তব্য’। তাজমহল, মন্দির ও কেল্লা, হিমালয় পর্বতমালা এবং পশ্চিম ও দক্ষিণের বালুকাময় সমুদ্রসৈকতসহ অসংখ্য পর্যটন কেন্দ্র রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে।

সরকারি ডেটা অনুযায়ী, গত বছর ২ দশমিক ৭৪ মিলিয়ন বিদেশি পর্যটক ভারত ভ্রমণ করেছেন। মহামারির আগের বছর, ২০১৯ সালে বিদেশি পর্যটকের সংখ্যা ছিল ১০ দশমিক ৯৩ মিলিয়ন। তাই স্বভাবতই, মহামারিকালে পর্যটন শিল্প ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জীবন-জীবিকারও বেশ ক্ষতি হয়েছে।

ভারতের মোট জিডিপির ৭ শতাংশ আসে পর্যটন শিল্প থেকে। সেই সাথে দেশটির লাখো মানুষের জীবিকা উপার্জনও এর সাথে জড়িত।

মহামারির আঘাতে জর্জরিত ভারত সাম্প্রতিক সময়ে সবচাইতে বেশি অর্থনৈতিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। তাই পর্যটন শিল্পের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা লাভের সুযোগ হাতছাড়া করা তাদের পক্ষে কঠিন।

নতুন বিধিমালার অধীনে ১৫ অক্টোবরের আগে ইস্যু করা সকল ট্যুরিস্ট ভিসা বাতিল করা হবে। অর্থাৎ, ভারত ভ্রমণের জন্য পর্যটকদের অবশ্যই নতুন ভিসা সংগ্রহ করতে হবে।

তবে ভ্রমণপিপাসুদের জন্য কোভিড পরীক্ষা, টিকাদান ও কোয়ারেন্টাইন বিধিমালা সম্পর্কে এখনও কিছু জানায়নি ভারত। সূত্র: বিবিসি