শার্শায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

Admin

অক্টোবর ০২ ২০২১, ১১:৪০

বেত্রাবতী ডেস্ক।।শার্শায় পারিবারিক কলহের জেরে ঝর্ণা খাতুন (৩০) নামে দুই সন্তানের জননীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (১ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের রাড়িপুকুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, ১০-১২ বছর আগে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার খোরদো গ্রামের রবিউল ইসলামের মেয়ে ঝর্ণা খাতুনের বিয়ে হয় শার্শার রাড়িপুকুর গ্রামের সিদ্দিক হোসেনের ছেলে ফারুক হোসেনের সঙ্গে। তাদের দুইটি ছেলে সন্তান রয়েছে। ফারুক পেশায় একজন গরু ব্যবসায়ী। প্রথমে তাদের সংসার জীবন ভালো চললেও গত কয়েক বছর কলহ লেগেই ছিল।

এরই জেরে গতকাল রাতে স্বামী ফারুক স্ত্রী ঝর্ণাকে মারধর করে। পরে ভোরের দিকে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝর্ণাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

নিহত ঝর্ণার ভাই তরিকুল ইসলামের অভিযোগ, ‘আমার বোনকে যখন ফারুকের সঙ্গে বিয়ে দেই তখন তাদের মধ্যে কোনও ঝামেলা ছিল না। গত কয়েক বছর ধরে যৌতুকের জন্য প্রায় বোনকে মারধর করে আমাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দিতো’ আর টাকা আনতে বলতো। বোনের সুখের কথা ভেবে আমরা কয়েক দফায় ফারুককে অনেক টাকা দিয়েছি।

কিন্তু গত কয়েকমাস ধরে সে আবার যৌতুকের আড়াই লাখ টাকা চায়। টাকা না দিতে পারায় প্রায় আমার বোনের ওপর নির্যাতন করতো। আমার বোন আত্মহত্যা করেনি, তাকে পিটিয়ে হত্যা করে নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে লাশ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।’

শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম খান জানান, এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্টের জন্য যশোর মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে আসল রহস্য।