বেনাপোল বন্দরে পণ্য পরিবহনে যুক্ত হলো পার্সেল ভ্যান ইনল্যান্ড ওয়াল্ড লজেসটিক

Admin

সেপ্টেম্বর ২৯ ২০২১, ১৯:০৯

বেত্রাবতী ডেস্ক।।বেনাপোল বন্দরে আমদানি বাণিজ্যে পণ্য পরিবহনে নতুন করে যুক্ত হলো ইনল্যান্ড ওয়াল্ড লজেসটিক নামে ভারতীয় রেলের একটি পার্সেল ভ্যান।

ছোট থেকে বড় সব শ্রেনীর আমদানি কারকদের এ রেলে পণ্য পরিবহনের সুযোগ থাকছে। খরচও কম পড়বে বলে জানিয়েছেন সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
সড়ক পথে পণ্য পরিবহনে নানান সমস্যায় রেলে দিন দিন আমদানি বাণিজ্যে ঝুকছেন ব্যবসায়ীরা। ইনল্যান্ড ওয়াল্ড লজেসটিক ছাড়াও এপথে আরো দুটি পার্সেল ভ্যান ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে রেলে পণ্য পরিবহন করে আসছে।
সোমবার বিকালে পার্সেল ভ্যানটি প্রথম চালানে দুই জন আমদানি কারকের ৪৫০ মেট্রিক টন পণ্য নিয়ে রেলটি কলকাতা থেকে ছেড়ে বেনাপোল বন্দরে পৌছায়।
ইনল্যান্ড ওয়াল্ড লজেসটিকের ইন্দো-বাংলা ট্রেড ম্যানেজার অনুসকর জানান, বাংলাদেশে এই প্রথম তারা আমদানি পণ্য পরিবহন করছেন। তাদের রেলে এক কেজি থেকে শুরু করে সব পরিমানের পণ্য পরিবহন করতে পারবেন।
খরচও অনেক কম পড়বে। বন্দরে জায়গা সংকটের কারনে আপাতত তারা সপ্তাহে একদিন এ রেল কলকাতা থেকে পণ্য নিয়ে বেনাপোল বন্দরে আসবে।
পণ্য রক্ষনা বেক্ষনের পর্যাপ্ত জায়গা বাড়ানো হলে সপ্তাহে ৭ দিন পণ্য পরিবহন করবে।
ইনল্যান্ড ওয়াল্ড লজেসটিক পার্সেল ভ্যানের বাংলাদেশ অংশের ক্লিয়ারিং এজেন্ট রাতুল এন্টার ন্যাশনালের আব্দুল লতিফ জানান, রেলে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে নতুন এ পার্সেল ভ্যান যুক্ত হওয়ায় প্রতিযোগীতা বড়বে। এতে আমদানি খরচ কমবে। ব্যাবসায়ীরা লাভবান হবেন।দেশে আমদানি পণ্যের বাজার মুল্যের কমে আসবে।
বেনাপোল আমদানি রফতানি সমিতির সহসভাপতি আমিনুল হক জানান, এপথে আমদানি কারকেরা বনগা কালিতলা ট্রাক পাকিং সিন্ডিকেটের কাছে জিম্মী হয়ে পড়েছিল।
কলকাতা থেকে পণ্য নিয়ে ট্রাক কালিতলা পাকিংয়ে ১৫ দিন থেকে এক মাসন পর্যন্ত সিরিয়ায়ালে দাড়িয়ে থাকতে হতো।
এতে একদিকে অর্থ লোকশান হতো অণ্য দিকে সময় মত পণ্য পরিবহন করতে না পরায় শিল্প কলকারখানায় উৎপাদন ব্যহত হচ্ছিল।
রেলে পণ্য আমদানিতে দিনের দিন কলকাতা থেকে পার্সেল ভ্যান বেনাপোল বন্দরে পৌচাচ্ছে। এতে তারা বিভিন্ন ভাবে উপকৃত হচ্ছেন।
বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার আজিজুর রহমান জানান, রেলে পণ্য আমদানি হওয়ায় বাণিজ্যে গতি ফিরেছে। আমদানি বৃদ্ধিতে সরকারের রাজস্ব আয়ও বেড়েছে।
দ্রুত পণ্য খালাসের জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে কাস্টমস সদস্যরা।