ঘূর্ণিঝড় গুলাবের শক্তি বেড়েছে, সতর্কতা জারি অন্ধ্র-ওড়িশায়

Admin

সেপ্টেম্বর ২৬ ২০২১, ১৩:৪০

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় গুলাব দেশটির উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ এবং প্রতিবেশি ওড়িশা উপকূলের দিকে ঘণ্টায় ১৮ কিলোমিটার গতিতে ধেয়ে যাচ্ছে।

রোববার মধ্যরাতের দিকে গুলাবের আঘাতের আশঙ্কায় এ দুই রাজ্যের উপকূলীয় জেলাগুলোতে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ (আইএমডি) সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, ওড়িশার গোপালপুর এবং অন্ধ্রপ্রদেশের কলিঙ্গপত্তমের মধ্যবর্তী এলাকায় এই ঘূর্ণিঝড় ঘণ্টায় ৯৫ কিলোমিটারের বেশি বাতাসের গতিবেগ নিয়ে আঘাত হানতে পারে।

যদিও রোববার সকালের দিকে ভারতের আবহাওয়া বিভাগের এক সতর্কতাবার্তায় ঘূর্ণিঝড়ে বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৮৫ কিলোমিটার হতে পারে বলে জানিয়েছিল।

সন্ধ্যা ৬ টার দিকে সর্বশেষ হালনাগাদ তথ্যে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ বলেছে, বর্তমানে ঘূর্ণিঝড় গুলাব গোপালপুর থেকে প্রায় ৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ এবং কলিঙ্গপত্তম থেকে ৮৫ কিলোমিটার পূর্ব-উত্তরপূর্বে অবস্থান করছে।

আইএমডি বলছে, ঘণ্টায় ১৮ কিলোমিটার বাতাসের গতিবেগে ধেয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় গুলাব।

ভারতের ত্রাণ বিভাগের মহাপরিচালক সত্য নারায়ণ প্রধান বলেছেন, ওড়িশায় জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর (এনডিআরএফ) ১৩টি দল এবং অন্ধ্র প্রদেশে পাঁচটি দল মোতায়েন করা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতের আশঙ্কায় পূর্ব-সতর্কতা হিসেবে পূর্বাঞ্চলে ট্রেন চলাচল বাতিল, পথ পরিবর্তন অথবা সূচিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

ওড়িশার সরকার ইতোমধ্যে রাজ্যের দক্ষিণাঞ্চলীয় এলাকার সাতটি জেলায় লোকজনকে সরিয়ে নিতে শুরু করেছে। এই এলাকার গ্যানজাম এবং গজপতি জেলায় লোকজনকে সরিয়ে নেয়ার কাজ জোরদার করা হয়েছে।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ বলেছে, ঘূর্ণিঝড় গুলাবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে অন্ধ্র প্রদেশের এ দুই জেলা। শুধুমাত্র গ্যানজাম জেলাতেই উদ্ধারকারী ১৫টি দল মোতায়েন করা হয়েছে বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। সূত্র: এনডিটিভি।