পর্যটকদের স্বর্গরাজ্য ক্রোয়েশিয়া

Admin

সেপ্টেম্বর ২০ ২০২১, ১২:৪৩

নয়নাভিরাম ক্রোয়েশিয়ার তিন ভাগের এক ভাগজুড়ে বনভূমি। পর্যটকদের দারুণভাবে আকর্ষণ করে অপরূপ সৌন্দর্যের দেশটির বন-জঙ্গল এবং ঝরনাগুলো।

দেশটিতে এমন সব বনাঞ্চল আছে, যেখানে এখনো মানুষের পা পড়েনি। কথায় আছে পর্যটকদের স্বর্গরাজ্য ক্রোয়েশিয়া।

গেম অব থ্রোন্সের কল্পরাজ্য ক্রোয়েশিয়া। ‘ওয়েস্টেরস’ নামের কাল্পনিক ওই দেশের রাজধানী ‘কিংস ল্যান্ডিং’-এর অস্তিত্ব যেন আছে ক্রোয়েশিয়ারই একটি শহর। নাম ডুব্রোভনিক। মূলত এখানেই গেম অব থ্রোন্স সিনেমার শুটিং করা হয়েছিল।

পৃথিবীর অন্য কোথাও ‘টাই’ দিবস পালন হয় না। ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে ক্রোয়েশিয়ায় ‘টাই-ক্রাভাত’ দিবস পালন করা হয়ে থাকে। সপ্তদশ শতাব্দীতে ‘থার্টি ইয়ার্স ওয়্যার’-এর সময় ফরাসি সেনাবাহিনীতে ক্রোয়েশিয়ানরা এই কাপড়টি পেঁচিয়ে রাখত।

ক্রোয়েশিয়া। রাজধানী জাগ্রেব। ইউরোপের দক্ষিণপূর্বে অবস্থিত এই জায়গাটির সরকারি নাম রিপাবলিক অব ক্রোয়েশিয়া। দেশটির উত্তর-পশ্চিমে স্লোভেনিয়া, উত্তর-পূর্বে হাঙ্গেরি, পূর্বে সার্বিয়া, দক্ষিণ-পূর্বে বসনিয়া, হার্জেগোভিনা ও মন্টিনিগ্রোর অবস্থান।

দেশটি দেখতে এক ফালি চাঁদের মতো। কেন্দ্রীয় মহাদেশীয় ক্রোয়েশিয়া ও স্লোভোনিয়ায় সমভূমি, হ্রদ ও পাহাড় অবস্থিত। ইউরোপের দ্বিতীয় দীর্ঘতম নদীও এই দেশে অবস্থিত যা দেশটির ভুখোভার শহরের মধ্য দিয়ে বয়ে গেছে। পশ্চিমে রয়েছে দিনারীয় আল্পস পর্বতমালার বৃক্ষ আচ্ছাদিত অংশ।

আর রয়েছে আড্রিয়াটিক সাগরের পর্বতসঙ্কুল তটরেখা। এই উপকূলে আরও আছে হাজারের অধিক বিভিন্ন আকৃতির দ্বীপ। অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দেশ ক্রোয়েশিয়া ১৯৯১ সালে স্বাধীনতা অর্জন করে। ক্রোটরা ৬ষ্ঠ শতকে এখানে আসে এবং নবম শতাব্দির মধ্যেই তারা অঞ্চলটিকে দুইটি জমিদারিত্বের মাধ্যমে সুসংগঠিত করে তোলেন।

ক্রোয়েশিয়ার জনসংখ্যা মাত্র ৪০ লাখ। ‘হ্র্ভাৎস্কি য়েজ়িক্’ একটি দক্ষিণ স্লাভীয় ভাষা। এটি মূলত ক্রোয়েশিয়া, বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা এবং অন্যান্য প্রতিবেশী রাষ্ট্রের ক্রোয়াট সম্প্রদায়ের লোকদের মধ্যে প্রচলিত।

২০০৩ সাল থেকে ক্রোয়েশিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নে যোগদানের চেষ্টা শুরু করে। তবে যুদ্ধাপরাধী জেনারেল আন্তে গুতোভিনা পলাতক থাকায় সে প্রক্রিয়া সফল হয়নি। ২০০৫ সালে তিনি ধরা পড়েন।

হেগে প্রতিষ্ঠিত জাতিসংঘের যু্দ্ধাপরাধ ট্রাইবুনাল ২০১১ সালে তাকে দোষী সাব্যস্ত করার পর ২০১৩ সালে দেশটি ইউরোপীয় ইউনিয়নে যোগ দেয়। দেশটি ইইউর ২৮তম সদস্য। তবে অর্থনৈতিকভাবে খুব বেশি অগ্রসর হতে পারেনি ক্রোয়েশিয়া